জাতীয় ঐক্যফ্রন্টজোট রাজনীতিবিএনপিলীড

ভারতীয়দের সাহায্যে বিএনপি কখনোই ক্ষমতায় আসতে পারবে না: ডা. জাফরুল্লাহ

০৫ সেপ্টেম্বর ২০২০।। ২০.১৫

নিজস্ব প্রতিবেদক

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামী লীগ বুঝেনি, বিএনপির বেগম খালেদা জিয়া বুঝেছিলেন ভারত বাংলাদেশের বন্ধু না শত্রু।

সেটি তিনি হিসেব করতে পেরেছিলেন। আজকে ভারতীয়দের থেকে সাবধান থাকতে হবে।

ভারতীয়দের সাহায্যে কখনোই বিএনপি ক্ষমতায় আসতে পারবে না। বিএনপি ক্ষমতায় আসবে তার জনগণের ভালোবাসা নিয়ে।


শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সাবেক ভিসি ড. এমাজউদ্দিন আহমেদ স্মরণে নাগরিক শোকসভায় তিনি এসব কথা বলেন।


জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, এমাজউদ্দিন আহমেদ পরিস্কারভাবে বিভিন্ন সময় বলেছিলেন ভারত থেকে সাবধান থাকতে হবে।

উনার এই সাবধান বাণীকে সরকার কিভাবে নিলেন, তাদের (ভারতের) একজন রাষ্ট্রপতির মৃত্যুতে তারা একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক সভা পালন করলেন।

অথচ হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি শেখ মুজিব রহমানের জন্ম কিংবা মৃত্যু দিবস ভারতে কখনো রাষ্ট্রীয়ভাবে পালিত হয় নি। আর কতটা পা চাটবেন।

আমি বারে বারে বলেছি দেশের বিভিন্ন সমস্যা ভারতের সৃষ্টি। চীনারা সোনাদিয়ে দ্বীপের সমুদ্র বন্দর করবে বলেছিলো কিন্তু ভারতীয়রা অসন্তুষ্ট হয়েছে তাই এটা আর হবে না।

চীন যারা আমাদের পক্ষে ছিলেন তারা আমাদের ছেড়ে অন্যদিকে গেলেন। এই জিনিসটা বিভিন্ন সময় এমাজউদ্দিন সাহেব বলেছেন।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এই নেতা বলেন, দেশবাসী চায় আমরা রাস্তায় দাঁড়াই।

আমরা রাস্তায় দাঁড়াতে দেখলে তারা প্রথমদিন, দ্বিতীয় দিন না আসলেও তৃতীয় দিন ঠিকই আমাদের পাশে এসে দাঁড়াবে। তারা আসবে।

এই কথাটা প্রধানমন্ত্রী জানেন, কিন্তু তিনি বিশ্বাস করেন না।


তিনি বলেন, আমি মানববন্ধনে বলেছি এই প্রণব বাবু আমাদের কি কি উপকার করেছে তার একটা হিসাব করি।

আরও পড়ুন: চট্টগ্রাম হাটহাজারীতে গণস্বাস্থ্য গরীবের হাসপাতাল উন্নয়ন কাজ শুরু

ফেলানি যখন মারা যায় তার বিচার টা পর্যন্ত তিনি করেন নাই। তিনি কি বলেছিলেন, ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশনের রাস্তা টা কে ফেলানির নামে নাম করা হোক।

রাষ্ট্রপতি হিসাবে প্রণব বাবু কোনদিন এইসবের প্রতিবাদ করেন নি।


সরকারের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, কোন না কোন সময় তো পরিবর্তন হবে, তখন আপনাদের ভুল শাসনের, দুঃশাসনের বিচার হলে আপনাদের কত বছরের সাজা হবে।


বিএনপির উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তরুনদের দিয়ে বিএনপির কাউন্সিল মিটিংটা করান। তারা মার খেয়েছে, তারা রাস্তায় দাঁড়াবে। তাদের স্ট্যান্ডিং কমিটিতে নিতে হবে।

এখন খালেদা জিয়ার অবশ্যই কথা বলতে হবে। আজকে হাইকোর্টে ঘেরাও দিতে হবে। অন্যদের বেইল হয়।

সবার জামিন হয়, ফাঁসির আসামীর জামিন হয় খালেদা জিয়ার বেইল হয়না।


গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা বলেন, এমাজ উদ্দিনের সাহেব তার জ্ঞানের আলোয় সবাইকে আলোকিত করতে চেয়েছেন, কিন্তু দূর্ভাগ্যবসত আলোটা আমাদের রাজনীতিবিদদের অন্তরে প্রবেশ করে নাই।

ভারতীয়দের সাহায্য নিয়ে বিএনপি কখনোই ক্ষমতায় আসতে পারবেননা।।বিএনপি আসবে তার জনগনের সমর্থন নিয়ে।

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, এমাজউদ্দিন আহমেদরা কিছু পাওয়ার লোভে কিংবা ক্ষমতার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকতে পারবেন এই সব চিন্তা করে কোন কাজ করেন না।

তারা ন্যায়ের পক্ষে সব সময় কাজ করতেন, মানুষের চিন্তা, মনন ও বিবেককে জাগ্রত করতে কাজ করতেন।


তিনি বলেন, ডা. এমাজউদ্দিন সব সময় আমার খোজ খবর নিতেন, কাউকে কোনদিন ছোট করে কথা বলেন নি। তার জীবন যাপন সম্পর্কে আমাদের সবাইকে জানাতে হবে।

সরকারের অনিয়ম, দূর্নীতি সম্পর্কে তিনি বলেন, একের একের পর দূর্নীতিতে পর্যবাসিত সরকারের লোকজন।

দূর্নীতি ধরা পড়ছে কিন্তু তা গণমাধ্যমে প্রকাশ করতে দেয়া হচ্ছেনা। এখন তো দূর্নীতিকান্ডে ক্ষমতাশীনদের আত্মীয়, স্বজনরা ও ধরা পড়ছে।


জাতীয় স্মরণ মঞ্চের সভাপতি আ হ ম মনিরুজ্জান দেওয়ান মনিক এর সভাপতিত্বে শোকসভায় আরও বক্তব্য রাখেন-

মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাত,

সিনিয়র সাংবাদিক শওকত মাহমুদ, আব্দুল হাই শিকদার, বিএনপির যুগ্ন মহাসচিব এড সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল,

খায়রুল কবির খোকন, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক সেলিম ভুঁইয়া প্রমুখ।###

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

Tags

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven − 7 =

Back to top button
Translate »
Close
Close