বিএনপি

রিজভীর শারীরিক অবস্থা নিয়ে ফের বসছে মেডিক্যাল বোর্ড

২৬ অক্টোবর ২০২০।। ২২.০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

গত ১৩ অক্টোবর থেকে তিনি হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ছিলেন। ১৯ অক্টোবর সেখান থেকে তাকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে।

এদিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রুহুল কবির রিজভীর শারীরিক অবস্থা বিষয়ে সর্বশেষ করণীয় নির্ধারণে মেডিক্যাল বোর্ড বৈঠকে বসতে যাচ্ছে।

মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) বিকেলে ল্যাবএইড হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ ডাঃ সোহরাব উজ জামানের নেতৃত্বে সাত সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড ফের বৈঠকে বসবেন।

আরো পড়ুন:রুহুল কবির রিজভী অসুস্থ:হাসপাতালে ভর্তি

রুহুল কবির রিজভীর সহকারী আরিফুর রহমান তুষার এ তথ্য জানিয়ে বলেছেন, বর্তমানে রিজভীর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।

রুহুল কবির রিজভীর সুস্থতার জন্য তার পরিবার দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন বলে জানান রিজভীর এই সহকারী।

এরআগে ১৫ অক্টোবর রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে রুহুল কবির রিজভীর এনজিগ্রাম সফলভাবে সম্পন্ন হয়।

ল্যাবএইড হাসাপাতালের বিশেষজ্ঞ ডা: অধ্যাপক সোহরাবুজ্জামান ও অধ্যাপক জাহেদ এর নেতৃত্বে এনজিওগ্রাম করা হয়।

সেসময় কনসালট্যান্ট ও ইন্টারভেনশনাল কার্ডিওলোজিস্ট ডা: মাহবুবুর রহমান, ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) বিএসএমএমইউ শাখার সভাপতি ও যুগ্ম সম্পাদক ডা: এরফানুল হক সিদ্দিকী এবং ড্যাবের যুগ্ম সম্পাদক ও বিশিষ্ট অর্থপোডিক সার্জন ডা: শাহ মুহাম্মদ আমান উল্লাহ ছিলেন।

আরো পড়ুন: রিজভীর শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে

এছাড়াও ড্যাবের চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. মনোয়ারুল কাদির বিটু ও ডা. রফিকুল ইসলাম তাদের সঙ্গে ছিলেন।

ইতিমধ্যে পবিত্র মক্কা ও মদীনায় রিজভীর আরোগ্য কামনায় একাধিকবার বিশেষ মুনাজাত করা হয়েছে। দেশেও দলীয় নেতাকর্মীরা তার সুস্থতার জন্য দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছেন।

রিজভীর সার্বিক খোঁজ খবর নিচ্ছেন তারেক রহমান

এদিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর সার্বক্ষণিক খোঁজখবর নিচ্ছেন দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

তারেক রহমান লন্ডন থেকে নানা মাধ্যমে অসুস্থ রিজভীর শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিচ্ছেন। ইতোমধ্যে তিনি ডক্টরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব),

জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন সহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদেরকে রিজভীর সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ও চিকিৎসা নিশ্চিত করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

হাসপাতালে ভর্তির পর ওইদিন বিকেলেই বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে গিয়ে রুহুল কবির রিজভীকে দেখে এসেছেন।

তিনি তার শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিয়েছেন। তার সাথে বিএনপির নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অধ্যাপক ডা: ফরহাদ হালিম ডোনারও রিজভীর খোঁজ-খবর রাখছেন।

আরো পড়ুন:রিজভীর শারীরিক অবস্থা দেখেছে মেডিকেল বোর্ড

এছাড়া বিএনপির বিভিন্ন ধরনের নেতাকর্মীরা গিয়ে রিজভীর খোঁজ-খবর নিয়ে আসেন। হাসপাতালে ছাত্রদল যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা গিয়ে রিজভীর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিচ্ছেন।

উল্লেখ্য যে, ১৩ অক্টোবর দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের মানববন্ধন কর্মসূচি শেষ করে নিজের গাড়িতে ওঠেন রিজভী।

এরপরই বুকে ব্যাথা অনুভব করলে প্রথম তাকে কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে নেয়া হয় বলে জানান তার সহকারি আরিফুর রহমান তুষার।

এরপর দ্রুত সেখান থেকে তাকে ধানমন্ডির ল্যাবেএইডে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাকে সিসিইউতে চিকিতসকরা নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখেন।

আরো পড়ুন:রিজভীর সুস্থতা কামনায় দেশের বিভিন্ন স্থানে দোয়া মাহফিল

রিজভীর সহকারী আরিফুর রহমান তুষার চিকিৎসকের বরাত দিয়ে জানান, রুহুল কবির রিজভীর শারীরিক তেমন কোনো জটিলতা নেই।

গত মঙ্গলবার তার এনজিওগ্রাম সম্পন্ন হয়েছে। হাসপাতালে পৌঁছার পরপরই থ্রোম্বাস অর্থাৎ জমাট বাধা রক্ত গলানোর জন্য একটি বিশেষ ইঞ্জেকশন প্রয়োগ করা হয়।

তার ২৪ ঘণ্টা পর এনজিওগ্রাম করালে হৃদযন্ত্রের (হার্ট) বা দিকে ৬০ থেকে ৭০ ভাগ ব্লক ধরা পড়ে। অর্থাৎ ৩০ থেকে ৪০ ভাগ অংশ দিয়ে রক্ত চলাচল পুনরায় স্থাপিত হয়।

তৎক্ষণাৎ মেডিক্যাল বোর্ড বসে সিদ্ধান্ত নেয় যে, ৪ সপ্তাহ পর এম. পি. আই পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়ার পর পরবর্তী চিকিৎসা নির্ধারণ করা হবে।

তুষার জানান, মঙ্গলবার ফের মেডিক্যাল বোর্ড সিদ্ধান্ত নিবেন পরবর্তী চিকিৎসা কী হবে? তবে এমনিতে সার্বিকভাবে সুস্থ আছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি আরো জানান, বর্তমানে স্যারের (রিজভী) শারীরিক অবস্থা কিছুটা উন্নতির দিকে যাচ্ছে। চিকিৎসকেরা তাকে পর্যবেক্ষণে রেখেছেন।

তিনি নরমাল (তরল জাতীয়) খাবার গ্রহণ করছেন। এছাড়া পর্যাপ্ত বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। নির্দিষ্ট সময় পর পর চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা স্যারের খোঁজ নিচ্ছেন।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

Tags

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

6 − four =

Back to top button
Translate »
Close
Close