অন্যান্য দলগণফোরামজাতীয় ঐক্যফ্রন্টজোট রাজনীতি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল চান ড. কামাল

শফিকউল্লাহ গণফোরামের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক

৬ মার্চ, ২০২১ ।। ২১.০৮

নিজস্ব প্রতিবেদক

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন নয়, বাতিল চান গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। তিনি বলেছেন, সরকার জনগণকে ভয় দেখাতে এই আইন ব্যবহার করছে।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের কথা চিন্তা করছেন-গণমাধ্যমের এমন সংবাদের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে শনিবার (৬ মার্চ) বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবে গণফোরামের এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন ড. কামাল।

প্রায় এক বছর পর বাসার বাইরে এসে এই প্রথম সংবাদ সম্মেলন করলেন ড. কামাল।

লিখিত বক্তব্যে কামাল হোসেন বলেন, আজ যারা নিজেদের নির্বাচিত দাবি করে দেশ শাসন করছে- তাদের প্রতি জনগণের আস্থা, বিশ্বাস ও সমর্থন নেই। জনবিচ্ছিন্ন এই সরকার জনগণকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে ক্ষমতাকে দীর্ঘায়িত করার অপকৌশল হিসেবে বিভিন্ন কালা কানুন জারি করেছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন তারই অংশ।

তিনি আরও বলেন, আমরা সংশোধন নয়, আইনটি বাদ দেয়ার পক্ষে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মাধ্যমে বাক স্বাধীনতা, চিন্তা করার স্বাধীনতাকে যেভাবে আঘাত দেয়া হচ্ছে- সেখান থেকে আমাদের সমাজকে পুরোপুরি মুক্ত করা দরকার।

গণফোরাম সভাপতি জানান, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী, শেরে বাংলা একে ফজলুল হক, মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নীতি-আদর্শের ভিত্তিতে গণফোরাম জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করতে আগামী রমজান মাসে সারাদেশে গণসংযোগ শুরু করবে।

গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়ার পদত্যাগের পর সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে কে- জানতে চাইলে ড. কামাল হোসেন বলেন, এখন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আওম শফিকউল্লাহ।

গণফোরামের অপর একটি অংশ জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে পৃথক কর্মসূচি পালন করছে; তারা গণফোরামের অংশ কিনা- জানতে চাইলে তিনি বলেন, গণফোরাম থেকে কিছু লোক বেরিয়েছেন, তারা বেরুতেই পারেন, বেরিয়ে গিয়ে বক্তব্যও রাখতে পারেন। বাধ্য করে কাউকে তো রাখা যায় না।

এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, আমরা যারা গণফোরাম করে যাচ্ছি- আমরা ঐক্যবদ্ধ আছি। আমরা জনগণের ঐক্যের ওপর ভরসা করে মাঠে আছি এবং মানুষের মধ্যে ঐক্যের জন্য ঐকমত্য অনেকটা গড়ে উঠেছে। আমরা চাচ্ছি, জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে- যাতে তারা যেসব অনুচিত কাজ করছে সেটা থেকে সরে দাঁড়াতে বাধ্য হয়।

সংবাদ সম্মেলনে কামাল হোসেনের লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান।
সংবাদ সম্মেলনে আওম শফিকউল্লাহ, মোশতাক আহমেদ, জানে আলম, সুরাইয়া বেগম ও সেলিম আকবার উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে কামাল হোসেন যখন জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভেতরে সংবাদ সম্মেলন করছিলেন তখন প্রেস ক্লাবের বাইরে যুব গণফোরাম ও ঐক্যবদ্ধ ছাত্র সমাজের ব্যানারে মোস্তফা মহসিন মন্টু, সুব্রত চৌধুরী ও অধ্যাপক আবু সাইয়িদদের নেতৃত্বে একটি অংশ লেখক মুশতাক আহমেদের কারাগারে মৃত্যু ও কার্টুনিস্ট কিশোরের ওপর নিপীড়ন-নির্যাতনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করে।

এই সমাবেশে গণফোরামের কেন্দ্রীয় নেতা জগলুল হায়দার আফ্রিক, লতিফুল বারী হামিমসহ যুব গণফোরামের নেতা নাসির হোসেন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

Tags

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × five =

Back to top button
Translate »
Close
Close