বিএনপিমৎস্যজীবী দল

মৎস্যজীবীদের নগদ প্রণোদনা দেয়া হোক: মৎস্যজীবী দল

২৮ এপ্রিল ২০২১।। ১৪.৩০

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশে মৎস্যচাষীদের দুরাবস্থা বিবেচনা করে তাদেরকে নগদ প্রণোদনা দেয়া ও ঋণ পুন:তফসিল এবং সুদ মওকুফ করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দল।

সংগঠনের আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম মাহতাব এবং সদস্য সচিব আব্দুর রহিম বুধবার (২৮ এপ্রিল) এক বার্তায় মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনা করে এই আহ্বান জানান।

আরো পড়ুন: লকডাউনে জেলেদের সাহায্য বৃদ্ধি করতে হবে: মৎস্যজীবী দল

তারা সরকারের উদ্দেশ্যে বলেন, এক বছরে মাছের দাম বেড়েছে তিন দফা। প্রায় প্রতি টনে- ৩৫০০ টাকা অর্থাৎ এক কেজি মাছ উৎপাদনে খরচ পড়ে ৯৫/৯৮ টাকা।

আর মাছ বিক্রি করে প্রতি কেজিতে পাচ্ছে- ৭০/৮৫ টাকা। তাহলে ভেবে দেখুন মৎস্যচাষীরা কোথায় যাবে?

মাছের দাম কমতে কমতে এমন পর্যায়ে পৌছেছে যে, লক্ষ লক্ষ মৎস্যচাষীরা আজ ঋণে ক্লান্ত, এমনকি বেঁচে থাকার আশাটুকুও হারিয়ে ফেলেছে।

নেতৃদ্বয় বলেন, মৎস্যচাষীদের দূরাবস্থা বিবেচনা করে তাদেরকে নগদ প্রণোদনা, ঋণ পুন:তফসিল ও সুদ মওকুফের মাধ্যমে পুনরুজ্জীবিত করার যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করে তা সচল ও মাছ উৎপাদনে ধারাবাহিকতা রক্ষা জরুরি।

ভুলে গেলে চলবে না এই মৎস্য থেকে আমাদের ৭০% আমিষের চাহিদা পুরণ হয়ে থাকে এবং মাছ বিদেশে রপ্তানির মাধ্যমে জিডিপিতে প্রায় ৯ ভাগ অর্থ যুক্ত হয়।

প্রায় আড়াই কোটি মানুষ বিভিন্নভাবে মৎস্যখাতের সাথে যুক্ত আছে যা বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ১০ ভাগ।

বৃহত্তর বেকার কর্মসংস্থানের মাধ্যমে বাংলাদেশের অর্থ ও সামাজিক উন্নয়নে মৎস্য খাতের অবদান অনস্বীকার্য।

ভাতে-মাছে বাঙ্গালি খ্যাত বাংলাদেশে ভাতের পরেই মাছের স্থান এবং বৈদেশিক আয়ের মাধ্যমে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।

মৎস্যজীবী দলের আহবায়ক রফিকুল ইসলাম মাহতাব এবং সদস্য সচিব আব্দুর রহিম মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনা করে সরকারকে অনতিবিলম্বে মৎস্যজীবীদের রক্ষায় সর্বাত্মক কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine − 4 =

Back to top button
Translate »