খালেদার রোগমুক্তির জন্য ছাত্রদলের পদপ্রত্যাশীদের ইফতার বিতরণ

২৯ এপ্রিল ২০২১।। ২২.৫০

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া করোনা আক্রান্ত হয়েছেন আজ প্রায় বিশ দিন হলো।

দ্বিতীয় দফায়ও তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তিনি সুস্থ থাকলেও তার শারীরিক কিছু পরীক্ষার জন্য গত মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতলে ভর্তি করানো হয়েছে।

আরো পড়ুন: কালীগঞ্জে খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় এতিমদের মাঝে ছাত্রদলের ইফতার বিতরণ

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় তার দলের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করছেন। কেউ কেউ মিলাদ ও দোয়া মাহফিল করছেন।

কেউ কেউ পশু কুরবানী করছেন এতিম খানায়। অনেকেই রোজার মাসে ইফতার বিতরণ করছেন গরিব মানুষের মাঝে।

তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার ১৬তম রমজানে (২৯ এপ্রিল) ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে পদপ্রত্যাশী নেতৃবৃন্দ।

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি ও দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া মাহফিল ও এতিম, দুস্থ এবং পথশিশুদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক শেখ আল ফয়সাল, মোঃঝলক মিয়া, সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ মুতাছিম বিল্লাহ, সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল ফিরোজ, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, লেদার ইনস্টিটিউট এর আহবায়ক শাহ আলম, সাবেক কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক মোল্লা মোহাম্মদ মুছা, আনোয়ার পারভেজ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের যুগ্ম-সম্পাদক আবুল খায়ের ফরায়েজি, প্রচার সম্পাদক জুয়েল মৃধা, ঢাকা কলেজের সহ-সভাপতি
মেহরাব আহমেদ মাহি বিশ্বাস, মাহমুদুল হাসান আল মারজান, যুগ্ম সম্পাদক আশিক আহমেদ, ঢাকা মহানগর পূর্বের সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন সর্দার, যুগ্ম সম্পাদক আসাদুজ্জামান আশা, ঢাকা মহানগর উত্তরের সহ-সাধারণ সম্পাদক তানভীর আল হাদী, সহ-সম্পাদক হিমেল আল ইমরান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম-সম্পাদক আব্দুস সালাম হিমেল সহ শতাধিক নেতাকর্মী।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

সাবেক এমপি আলী আহমেদের মৃত্যু: বিএনপি নেতা বকুলের শোক

২৯ এপ্রিল ২০২১।। ২০.৫০

নিজস্ব প্রতিবেদক

সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি), খুলনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি, দৈনিক অনির্বাণ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক অধ্যক্ষ আলী আহমেদ ইন্তেকাল করেছেন।

ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) আনুমানিক দুপুর সাড়ে ১২ টায় খুলনার একটি বেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন।

আরো পড়ুন: খালিশপুর থানা বিএনপি নেতার মৃত্যুতে বকুলের শোক

উল্লেখ্য যে, তিনি দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগ, কিডনি সহ বিভিন্ন জটিল রোগে ভুগছিলেন।

মরহুম আলী আহমেদ খুলনা আহসানউল্লাহ কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ। যিনি তার এলাকার উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রেখেছেন।

বিএনপি নেতা বকুলের শোক:

এদিকে মরহুম অধ্যক্ষ আলী আহমেদের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন বিএনপি নেতা রকিবুল ইসলাম বকুল।

যিনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে খুলনা-৩ আসনে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন।

এক শোকবার্তায় রকিবুল ইসলাম বকুল মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

বিএনপির কাউকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, কোনও নিরীহ হেফাজত নেতা কিংবা বিএনপির কোনো নেতাকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না । গ্রেফতার করা হচ্ছে অপরাধীদের। আলেম-ওলামাদের নয়, যারা আগুন সন্ত্রাসের সঙ্গে জড়িত তাদের ভিডিও ফুটেজ দেখে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) চট্টগ্রাম সড়ক জোন, বিআরটিসি ও বিআরটিএ কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় সম্প্রতি বেশকিছু গ্রেফতারের সমালোচনার জবাবে নিজের সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সুনির্দিষ্ট অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ভিডিও দেখে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা অপরাধীদের গ্রেফতার করেছে। এখানে কল্পকাহিনী তৈরির কোনও সুযোগ নেই। ঢাকা, হাটহাজারী, ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রকাশ্য দিবালোকে নারকীয় তাণ্ডব চালানো হয়েছে। তারপরও সন্ত্রাসীদের বাঁচাতে বিএনপি বক্তৃতা-বিবৃতির মাধ্যমে মনগড়া কল্পকাহিনী তৈরির অপপ্রয়াস চালাচ্ছে।’

১৫ আগস্ট, ৩ নভেম্বর, তথাকথিত ৭ নভেম্বর এবং ২১ আগস্ট ঘটিয়ে চক্রান্তের পথে ক্ষমতায় যাওয়ার দিন শেষ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘ক্ষমতায় যেতে হলে নির্বাচনের বিকল্প নেই। তাই আগামী নির্বাচন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, এ দেশে সরকারের জনভিত্তি ঠিকই আছে। তবে গত একযুগ ধরে বিএনপির নানান আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থতার মধ্য দিয়ে জনগণ প্রমাণ করে দিয়েছে তারা প্রকৃতপক্ষে জনবিচ্ছিন্ন। বিএনপির রাজনীতির শেকড় বাংলাদেশের মাটির গভীরে নয়, অন্য কোথাও। অন্যদিকে শেখ হাসিনা সরকারের শেকড় এ দেশের মাটির অনেক গভীরে।

করোনার ভ্যাকসিন সংগ্রহের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রাখার আহ্বান জানিয়ে কাদের বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ ও মানবিক নেতৃত্বে প্রথম ডোজের মতো দ্বিতীয় ডোজের ভ্যাকসিনও বাংলাদেশ সময়মতো সংগ্রহ করবে ইনশাআল্লাহ। ’

তিনি বলেন, ভ্যাকসিন সংগ্রহে সরকারের সদিচ্ছা ও আন্তরিকতার কোনো ঘাটতি নেই। যারা ভ্যাকসিন নিয়ে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে প্রকৃতপক্ষে তাদের মনের কথা হচ্ছে- বাংলাদেশ যেন ভ্যাকসিন না পায়।

করোনার এ সংকটকালে বিশ্বের সমৃদ্ধ দেশগুলোও যখন সংকট মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে- তখন ভ্যাকসিন, আইসিইউ, অক্সিজেন ইত্যাদি নিয়ে সংকট তৈরি না করে সবার স্বাস্থ্যবিধির প্রতি অধিকতর মনোযোগী হওয়া উচিত বলে মনে করেন ওবায়দুল কাদের।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ভ্যাকসিন নিলে এন্টিবডি হয়, তাই মাস্ক ও স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে না- এসব কথা যারা ভাবেন, তারা বোকার স্বর্গে বাস করছেন।

তিনি বলেন, ‘আসুন দলমত নির্বিশেষে সংক্রমণ রোধে সর্বোচ্চ মনোযোগী হই, ঘরে ঘরে সমালোচনার পরিবর্তে সচেতনতার দুর্গ গড়ে তুলি। ’

সড়ক পরিবহন মন্ত্রী চট্টগ্রাম-কক্সবাজার সড়ক চার লেনে উন্নীত করতে সংশ্লিষ্টদের দ্রুত সম্ভব কাজ শুরু করার আহবান জানান। তিনি পার্বত্য চট্টগ্রামের সড়কগুলোতেও গুরুত্ব দেওয়ার নির্দেশনা দেন।

মন্ত্রী বিআরটিসির বহরের গাড়িগুলোকে যথাযথ মেরামতের কাজ করতেও সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

বিআরটিএ’কে দালালের চক্র থেকে রক্ষা করতে ওবায়দুল কাদের আবারও কঠোর হুঁশিয়ার দিয়ে বলেন, তা না হলে বিআরটিএ জনগণের যথাযথ সেবা দিতে পারবে না।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

খালেদা জিয়াকে আরও দুই-তিনদিন হাসপাতালে থাকতে হবে

২৯ এপ্রিল, ২০২১ ।। ২১.০৬

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক দলের সদস্য ডা. মোহাম্মদ আল মামুন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) তার বেশ কয়েকটি পরীক্ষা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে হাসপাতালে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাত করে ফেরার পর গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান ডা. আল মামুন।

তিনি জানান, সব পরীক্ষা শেষ করে বেগম জিয়ার হাসপাতাল ছাড়তে আরও দুই থেকে তিনদিন সময় লাগবে। আগামী সপ্তাহে তৃতীয়বারের মতো তার কোভিড পরীক্ষা করানো হবে বলেও জানান ডা. মামুন।

এর আগে বুধবার (২৮ এপ্রিল) খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকরা জানান, বেগম খালেদা জিয়াকে কতদিন হাসপাতালে থাকতে হবে, তা নিশ্চিত নয়। আরও কিছু পরীক্ষা ও পর্যবেক্ষণের পর সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
গত ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার করোনা শনাক্ত হয়। এরপর থেকে গুলশানের বাসা ‘ফিরোজায়’ তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এফএম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে চিকিৎসা শুরু হয়। করোনা আক্রান্তের ১৪ দিন অতিক্রান্ত হওয়ার পরে খালেদা জিয়ার করোনা টেস্ট করা হয়েছিল, কিন্তু ফলাফল পজিটিভ আসে।

এমন প্রেক্ষাপটে সিটি স্ক্যান (চেস্ট)সহ বেশকিছু পরীক্ষার জন্য গত মঙ্গলবার রাতে খালেদা জিয়াকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই রাতেই তার সিটি স্ক্যান (চেস্ট), ইসিজি, ইকোসহ হৃদরোগের পরীক্ষাগুলো করা হয়। পরদিন তার চিকিৎসার জন্য এভারকেয়ার হাসপাতালে ১০ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। এর মধ্যে বেগম জিয়ার তিনজন ব্যক্তিগত চিকিৎসকও রয়েছেন।

এদিকে বুধবার (২৮ এপ্রিল) রাতে খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক দলের সদস্য অধ্যাপক ডা. জাহিদ হোসেন জানান, ম্যাডামের চেস্ট সিটি স্ক্যানের রিপোর্ট ভাল। হৃদযন্ত্রের মধ্যেও কোনো ধরনের কার্ডিও সমস্যা নেই। এছাড়া ম্যাডামের কোনো করোনা উপসর্গও নেই। সে কারণে উনি কিন্তু এখন নন-করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন আছেন।

খালেদা জিয়া দীর্ঘ কয়েক বছর যাবত আর্থাটাইটিজ, ডায়াবেটিস ও চোখের সমস্যায় ভুগছেন। গত মঙ্গলবার খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে ভর্তি করার পর অধ্যাপক ডা. এফএম সিদ্দিকী বলেছিলেন, আমরা উনার অন্যান্য যেসব পরীক্ষা গত এক বছর করতে পারিনি সেগুলো করাব। সেজন্য পরীক্ষাগুলো সারতে আমরা উনাকে কেবিনে ভর্তি করিয়েছি।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

রিজভীর স্ত্রীও এবার হাসপাতালে ভর্তি

২৯ এপ্রিল ২০২১।। ১৯.০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর পর এবার তার স্ত্রী আরজুমান আরা বেগমকেও স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) সকালে হঠাৎ বুকে ব্যথা অনুভব করলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ডা. মাহবুব মনসুরের অধীনে তার চিকিৎসা চলছে।

আরো পড়ুন: স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রুহুল কবির রিজভী

এর আগে স্বামী রুহুল কবির রিজভী অসুস্থ হয়ে পড়লে তার স্ত্রী তাকে দিনরাত সেবা দিয়ে যাচ্ছিলেন।

তবে বৃহস্পতিবার তিনি তার স্বামীর সঙ্গে হাসপাতালে থাকাকালে বুকে ব্যথা অনুভব করেন। সাথে সাথে তাকে স্কয়ার হাসপাতালের সিসিইউতে ভর্তি করা হয়।

রুহুল কবির রিজভীর ব্যক্তিগত সহকারি আরিফুর রহমান তুষার এসব তথ্য জানিয়েছেন।

গত ১৬ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হন বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী। পরদিন ১৭ মার্চ তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরবর্তীতে ১৭ এপ্রিল তিনি করোনামুক্ত হলেও এখনো হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

সাংবাদিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান বিএনপির

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সদস্যদের জন্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে সংগঠনের সাগর-রুনি মিলনায়তনে ডিআরইউ’র সভাপতি মুরসালিন নোমানী ও সাধারণ সম্পাদক মসিউর রহমান খানের কাছে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী হস্তান্তর করেন বিএনপির স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম।

সুরক্ষা সামগ্রী হস্তান্তর অনুষ্ঠানে ডা. রফিকুল ইসলাম বলেন, গত বছরের ৮ মার্চ থেকে দেশে করোনার সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে বিএনপি জনগণকে সচেতন করতে লিফলেট বিতরণ, হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসকদের মাঝে পিপিই বিতরণসহ বিভিন্ন সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেছে। এরই অংশ হিসেবে সম্মুখযোদ্ধা সাংবাদিকদের মাঝে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করছে। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে বিএনপি এ কাজ করছে।

তিনি আরও বলেন, করোনাকালে সাংবাদিকরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। এই দুঃসময়ে সাংবাদিকদের পাশে থাকতে পেরে আমরা গর্বিত। ভবিষ্যতে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সেবামূলক কাজে বিএনপি পাশে থাকবে বলেও উল্লেখ করেন ডা. রফিকুল ইসলাম।

হস্তান্তর অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন-ডিআরইউ’র সহ-সভাপতি ওসমান গনি বাবুল, অর্থ সম্পাদক শাহ আলম নূর, সাংগঠনিক সম্পাদক মাইনুল হাসান সোহেল, তথ্য প্রযুক্তি ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক হালিম মোহাম্মদ, কল্যাণ সম্পাদক খালিদ সাইফুল্লাহ, কার্যনির্বাহী সদস্য রফিক রাফি, ডিআরইউ’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ চৌধুরী, সাবেক কার্যনির্বাহী সদস্য রাশেদুল হক, সদস্য রেজাউল করিম লাভলু, কামরুল হাসান, এস এম আতিক হাসান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে ডিআরইউকে আইভার ম্যাকটিন, স্যালাইনসহ বিভিন্ন ওষুধ ও সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান করায় সংগঠনের পক্ষ থেকে বিএনপিকে ধন্যবাদ জানানো হয়।

এরপর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খানের কাছে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী তুলে দেন ডা. রফিকুল ইসলাম। স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রীর মধ্য রয়েছে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও প্রয়োজনীয় ওষুধ।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

কারাগারে করোনা রোধে রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তি দাবি বিএনপির

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের কারাগারগুলোতে মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে মানবিক বিবেচনায় গুরুতর অপরাধে দন্ডিত আসামিরা ছাড়া রাজনৈতিক বন্দি ও লঘুদন্ডে দন্ডিত অপরাধীদের অবিলম্বে জামিনে মুক্তি দেওয়ার দাবি জানিয়েছে বিএনপি।

একইসঙ্গে সম্প্রতি সারাদেশ থেকে গ্রেফতারকৃত বিএনপি ও এর অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনসহ বিরোধী দলের কয়েকশ’ নেতাকর্মীর মুক্তি এবং কারাগারে করোনার সংক্রমণ রোধে বিজ্ঞানসম্মত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিও জানিয়েছে দলটি।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই দাবি জানান। দেশের কারাগারগুলোতে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের সংবাদে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে গণমাধ্যমে এই বিবৃতি দেন তিনি।

বিবৃতিতে করোনাকালে বন্দিরা যাতে আইনগতভাবে দ্রুত জামিন পেতে পারেন, সেজন্য আদালতের বেঞ্চের সংখ্যা বাড়ানোরও আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি দিন দিন ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। এমন পরিস্থিতিতে ধারণক্ষমতার চেয়েও কয়েকগুণ বেশি বন্দি থাকা কারাগারে স্বাস্থ্যবিধি মানা বা শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব নয়। যার ফলে কারাগারগুলো করোনা ভাইরাস সংক্রমণের প্রবল ঝুঁকিতে আছে। এর মধ্যে বেশকিছু কারাগারে করোনা ভাইরাসে বন্দিদের আক্রান্তের সংবাদ পাওয়া যাচ্ছে এবং ইতোমধ্যে একজনের মৃত্যু ঘটেছে বলেও সংবাদপত্রে খবর প্রকাশিত হয়েছে। কারাগারগুলোতে চিকিৎসা সেবা ব্যবস্থাও অত্যন্ত নাজুক। এমতাবস্থায় বন্দিদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিয়ে বন্দি ও তাদের আত্মীয়-পরিজনরা চরম উদ্বিগ্ন অবস্থায় আছেন।

তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি সারাদেশে বিএনপি এবং এর অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনসহ বিরোধী দলের কয়েকশ’ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে কারান্তরীণ রাখা হয়েছে। কারাগারে করোনা ভাইরাস আরো বিস্তার লাভ করলে ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে। এমতাবস্থায় উচ্চ আদালতের চূড়ান্ত বিচারে চাঞ্চল্যকর মামলায় দোষীরা বাদে রাজনৈতিক কারণে বন্দি ও লঘু অপরাধে কারান্তরীণ বন্দিদের মানবিক বিবেচনায় জামিন দেওয়া হলে করোনা ভাইরাসের এই ভয়াবহ পরিণতি থেকে বন্দিরা রক্ষা পেতে পারে বলে বিএনপি মনে করে।

মির্জা ফখরুল বলেন, যেহেতু চূড়ান্ত বিচারের আগে কাউকেই দোষী বলা যায় না, সেহেতু বিনা বিচারে একজন নির্দোষ লোকও যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়- তাহলে মৃত মানুষটির জীবন সরকার ফিরিয়ে দিতে পারবে না।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

লকডাউনে বিএনপি নেতা আব্দুস সালামের ফের ত্রাণ বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

চলমান লকডাউনে একাদশ সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১৩ (মোহাম্মদপুর, আদাবর ও শেরেবাংলা নগর থানা) আসনের ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ও বিএনপি চেয়ারপারসনের অন্যতম উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালামের পক্ষ থেকে গরিব ও অসহায় মানুষের মাঝে ফের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে শেরেবাংলা নগর থানার ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

চলমান লকডাউনে এর আগে বুধবার (২৮ এপ্রিল) মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে, মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) মোহাম্মদপুর থানার ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে, সোমবার (২৬ এপ্রিল) আদাবর থানায়, রোববার (২৫ এপ্রিল) মোহাম্মদপুর থানার ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে এবং শনিবার (২৪ এপ্রিল) মোহাম্মদপুর থানার ৩৪ নম্বর ওয়ার্ডে আব্দুস সালামের পক্ষ থেকে গরিব-অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছিল।

জানা গেছে, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালামের পক্ষ থেকে ঢাকা-১৩ আসনের প্রতিটি ওয়ার্ডে এই ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চলবে।

শেরেবাংলা নগর থানার ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে ত্রাণ বিতরণকালে বিএনপি নেতা জামাল হোসেন টুয়েল বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালামের পক্ষ থেকে আমরা সদা সর্বদা ঢাকা-১৩ আসনের গরিব-দুঃখী-অসহায় মানুষের পাশে রয়েছি। লকডাউনের কড়াকড়িতে যারা বিপর্যস্ত জীবনযাপন করছেন তাদের তালিকা করে আমরা বেশ কয়েকদিন ধরে নেতার পক্ষ থেকে ওয়ার্ডভিত্তিক খাদ্য সামগ্রী প্রদান করছি। এই কার্যক্রম চলমান থাকবে।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন-মোহাম্মদপুর থানা বিএনপির সভাপতি ওসমান গনি শাহজাহান, সিনিয়র সহ-সভাপতি হাজী মো. ইউসুফ, যুগ্ম-সম্পাদক জামাল হোসেন টুয়েল; শেরেবাংলা নগর থানার সিনিয়র সহ-সভাপতি মোতাহার হোসেন, মিজানুর রহমান স্বপন; মোহাম্মদপুর থানার দেলোয়ার হোসেন মামুন, খায়রুল বাসার মুক্তি, জহির উদ্দিন অপু, সালাউদ্দিন ভুট্টো, সোহেল ভুঁইয়াসহ অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

ছিনতাই মামলায় আটক ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতা আকরাম

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক আকরাম হোসেনকে সাদা পোশাকে তুলে নেয়ার পর রাজধানী শাহবাগের একটি ছিনতাই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়েছে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল)  দুপুরে তাকে আদালতে তোলা হয়। তার বিরুদ্ধে সাতদিনের রিমান্ডের আবেদন করেছে পুলিশ। এ তথ্য জানিয়েছেন  ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক আবু হানিফ।

এর আগে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মো. রাশেদ খাঁন এক বিবৃতিতে অভিযোগ করেছিলেন, গতরাত আনুমানিক রাত ১টার দিকে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে আকরাম হোসেনকে ৭-৮ জন সাদা পোশাকধারী তুলে নিয়ে গিয়েছে। আমরা অতিসত্ত্বর সুস্থ-স্বাভাবিক অবস্থায় তাকে ফেরত চাই।

ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম বলেন, ‘রাজধানীর শাহবাগ থানায় দায়ের হওয়া একটি মামলায় গত রাতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আকরাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী।

ছাত্র অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক আবু হানিফ বলেন, ‘রাত ১টার দিকে এয়ারপোর্টের দুই নম্বর টার্মিনাল থেকে সাদা পোশাকের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী আকরামকে তুলে নিয়ে যায়।

দীর্ঘ সময় পার হলেও তাকে গ্রেপ্তার না দেখানোর ফলে আমরা আশঙ্কা করছি তাকে গুমের চেষ্টা করা হচ্ছে। আমরা আকরামকে তার পরিবারের কাছে ফেরত দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

ইনস্টাগ্রামে আমাদের ফলো করুন: https://www.instagram.com/polnewsbd/

ভিডিও দেখতে ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন: https://www.youtube.com/channel/UCB6tJwKVyYC9hs9nk5PSy3A?

ভারতকে চিকিৎসা সরঞ্জাম দিবে বাংলাদেশ

২৯ এপ্রিল ২০২১।। ১৩.০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

বৈশ্বিক মহামারী করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারতকে সহযোগিতায় জরুরি ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম দিতে চায় বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়- ভারতে করোনা পরিস্থিতির দ্রুত অবনতির প্রেক্ষাপটে দেশটির জনগণের জন্য জরুরি ভিত্তিতে ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার।

আরো পড়ুন: ভারতকে ফাইনাল ওয়ার্নিং দেয়া দরকার: ডা: জাফরুল্লাহ

ভারতকে বাংলাদেশ সরকারের সহায়তার মধ্যে থাকছে প্রায় ১০ হাজার অ্যান্টিভাইরাল ইনজেকশন ও মুখে গ্রহণের ওষুধ, ৩০ হাজার পিপিই, কয়েক হাজার জিংক, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন সি ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় ট্যাবলেট।

করোনা সংক্রমণের বিস্তারে ভারতে মানুষের মৃত্যুতে বাংলাদেশ সরকার গভীর দুঃখ ও সমবেদনা প্রকাশ করেছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই সংকটময় সময়ে বাংলাদেশ তার ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশী ভারতের পাশে আছে।

ভারতের প্রতি বাংলাদেশ সংহতি জানাচ্ছে। মানুষের জীবন বাঁচানোর সম্ভাব্য সব উপায়ে সহায়তা দিতে বাংলাদেশ প্রস্তুত রয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়- ভারতের জনগণের দুর্ভোগ যাতে লাঘব হয়, সে জন্য বাংলাদেশের জনগণ প্রার্থনা করছে। প্রয়োজনে ভারতকে আরও সহায়তা দিতে বাংলাদেশ আগ্রহী।

ভারতে করোনা পরিস্থিতির মারাত্মক অবনতি হয়েছে। দেশটিতে প্রায় প্রতি দিন করোনা শনাক্ত ও মৃত্যুতে রেকর্ড হচ্ছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় (বুধবার) ভারতে ৩ লাখ ৭৯ হাজার ২৫৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। একই সময় দেশটিতে করোনায় মারা গেছে ৩ হাজার ৬৪৫ জন।

ভারতে করোনায় সংক্রমিত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৮৩ লাখ ৭৬ হাজার ৫২৪ জন। মোট মারা গেছে ২ লাখ ৪ হাজার ৮৩২ জন।

সাম্প্রতিক ইতিহাসে ভারতে করোনার সংক্রমণ মারাত্মক আকার ধারণ করায় দেশটি তার সবচেয়ে বড় স্বাস্থ্যগত চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে।

অক্সিজেন, জরুরি ওষুধ, হাসপাতালে শয্যার সংকটসহ নানা সমস্যায় দেশটির স্বাস্থ্যব্যবস্থা ভেঙে পড়ার উপক্রম।

দেশটিতে করোনা রোগীর সংখ্যা ব্যাপকভাবে বাড়তে থাকায় চাপ সামাল দিতে হাসপাতালগুলো হিমশিম খাচ্ছে।

প্রতিদিন অনেক রোগী মারা যাচ্ছেন শুধু অক্সিজেনের অভাবে। এমন পরিস্থিতিতে ভারতের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical