বিএনপিমৎস্যজীবী দল

মৎস্য খাত নানাবিধ সমস্যায় জর্জরিত: মৎস্যজীবী দল

২৬ মে ২০২১।। ২২.৩০

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশের দ্বিতীয় প্রধান বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনকারী সম্ভাবনাময় খাত হচ্ছে  মৎস্য খাত। খাদ্য নিরাপত্তা আর্থসামাজিক উন্নয়নে এই খাতের অবদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

সুতরাং আজ নানাবিধ সমস্যায় জর্জরিত এই বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনকারী মৎস্য খাতকে আরো উন্নয়নের কোনো বিকল্প নেই।

জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দলের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম মাহাতাব ও সদস্য সচিব মো: আবদুর রহিম বুধবার (২৬ মে) এক বিবৃবিতে এ মন্তব্য করেন।

আরো পড়ুন: খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় মৎস্যজীবী দলের দোয়া মাহফিল

তারা বলেন, আমাদের খাদ্য তালিকায় প্রাণীজ আমিষের শতকরা ৭০ ভাগ পূরণ হয়ে থাকে মাছ থেকে। জাতীয় অর্থনীতির ৫ ভাগ অর্জিত হয় মৎস্য খাত থেকে।

মৎস্য খাতের বিভিন্ন পর্যায়ে নারী সহ প্রায় আড়াই কোটি মানুষ সম্পৃক্ত আছে। মৎস্য খাত নানাবিধ সমস্যায় জর্জরিত। একসময়ে দেশের উত্তরাঞ্চল মাছের অভয়ারণ্য ছিল।

আভ্যন্তরীণ চাহিদার এক বিরাট অংশ পূরণ হতো এই অঞ্চল থেকে। কাপ্তাই লেকে প্রায় ২৫০০০ হাজার লোক মৎস্য পেশার সাথে জড়িত।

তাদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা সত্ত্বেও ৭ প্রজাতির মাছ বিলুপ্ত প্রায়। এক সময়ে দেশের পূর্বাঞ্চলের মাছের চাহিদার অধিকাংশ পূরণ হতো এই লেক থেকে।

নেতৃদ্বয় বলেন, দেশীয় মিঠা পানির ২৬০ প্রজাতির মাছের মধ্যে ১৪৩ প্রকার ছোট মাছ রয়েছে। তন্মধ্যে ৬৪ প্রজাতি বিলুপ্ত এবং ৫৪ ঝুঁকির মধ্যে আছে।

এমতাবস্থায় দেশীয় প্রজাতির সকল প্রকার মাছের সুরক্ষা ও কৃত্রিম প্রজননের মাধ্যমে বিলুপ্ত প্রজাতির মাছগুলো পুনরায় উৎপাদনের জন্য গবেষণা খাতকে আরো উন্নত ও সমৃদ্ধ করার জোর দাবি জানান মৎস্যজীবী দলের শীর্ষ দুই নেতা।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen + 1 =

Back to top button
Translate »