মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৬, ২০২১

ঢাকা উত্তর ছাত্রলীগ ও চা শ্রমিকদের সংঘর্ষ-ভাংচুর, আহত ১০

নিজস্ব প্রতিবেদক

মৌলভীবাজারে চা বাগানে নারী শ্রমিকের ছবি উঠানোকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ ও চা শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এতে ইস্পাহানী জেরিন চা বাগানের ম্যানেজারসহ উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

এসময় গ্র্যান্ড মোবিন রিসোর্ট নামে একটি গেস্ট হাউজের দরজা-জানালা ও আসবাবপত্র ভাংচুর করা হয়েছে।

মৌলভীবাজারে ছাত্রলীগ ও চা শ্রমিকদের সংঘর্ষ, আহত দশ

স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা মহানগর (উত্তর) ছাত্রলীগের সভাপতি মো. ইব্রাহিম হোসেন, আবিদ হোসেন, মামুন মিয়া, মেহেদী হাসান, রাজ্জাক মিয়া, আনোয়ার হোসেনসহ সহ প্রায় ১৮ জনের ছাত্রলীগের একটি দল শ্রীমঙ্গল রাধানগর এলাকার গ্র্যান্ড মুবিন রিসোর্টে উঠেন।

বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) দুপুরের দিকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রাধানগরের পাশে অবস্থিত জেরিন চা বাগানে বেড়াতে যান।

এ সময় চা বাগানে নারী চা শ্রমিকরা পাতা উত্তোলনের কাজ করছিল।

ঢাকা থেকে আসা ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা এসময় নারী শ্রমিকদের ছবি তুলতে গেলে তাদের বাঁধা দেওয়া হয়।

এক পর্যায়ে বাগানের ডেপুটি ম্যানেজার মোহাম্মদ আলী এসেও ছবি না তুলতে নির্দেশ দেন।

এতে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সাথে ডেপুটি ম্যানেজারের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে একজন ছাত্রলীগ নেতা ম্যানেজারকে লাঞ্ছিত করেন।

এ অবস্থায় বাগানের উপস্থিত শ্রমিকরা বাগানে পাগলা ঘণ্টি বাজায়।

সাথে সাথে অন্য শ্রমিকরা এসে ছাত্রলীগ নেতা কর্মীদের উপর হামলা চালায়। এতে উভয় পক্ষের অন্তত দশ জন আহত হন।

পরে, ক্ষিপ্ত শ্রমিকরা গ্র্যান্ড মুবিন রিসোর্টের চারটি কক্ষে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে।

খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে আনে।

পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজনের উপস্থিতিতে বিষয়টি সমাধান হয়।

এ ব্যাপারে ছাত্রলীগ সভাপতি সাংবাদিকদের বলেন, সামান্য কারণেই এমন হয়েছে, বেশি কিছু নয়।

অপরদিকে রিসোর্ট এর মালিক আব্দুল মুবিন তার রিসোর্টের কয়েকটি কক্ষ শ্রমিকদের হামলায় ভাংচুরের ঘটনার কথা জানিয়েছেন।

জেরিন চা বাগানের ম্যানেজার সেলিম রেজা চা শ্রমিকদের ছবি তুলা নিয়ে ঘটনার কথা বিষয়ে বলেন, কাজের সময় নারী চা শ্রমিকের শরীরের কাপড় ঠিক না থাকাতে ছবি তুলতে বাধা দেওয়া হয়। তাতেই তারা ক্ষিপ্ত হয়ে যায়।

সার্বিক বিষয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, এ বিষয়ে থানায় কেউ এখনো কোন অভিযোগ দেয়নি।

অভিযোগ পেলে ঘটনা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

Related Articles

আমাদের সোসাল মিডিয়া

সর্বশেষ সংবাদ

Translate »