মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৬, ২০২১

সরকারকে ঘৃণার চোখে দেখছে দেশের মানুষ: রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সরকারের পক্ষ থেকে আজ মিথ্যা কথা বলা হচ্ছে। দেশের শ্রেষ্ঠ বীরদের অপমানিত করা হচ্ছে। আজ প্রশ্ন তোলা হচ্ছে জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধ করেছেন কিনা। এসময় সরকারকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, যে ব্যক্তি স্বাধীনতার ঘোষণা দিলেন তার বিরুদ্ধে কুৎসা রটাচ্ছেন? যার সহধর্মিণী বারবার গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করে গণতন্ত্রকে রক্ষা করেছেন, তার বিরুদ্ধে কুৎসা রটাচ্ছেন? জাতি আপনাদেরকে ঘৃণার চোখে দেখছে।

রোববার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কাযালয়ের নিচে সাবেক ছাত্রনেতা আনসার আলী খান জয়ের অকাল মুত্যুতে আয়োজিত শোক সভা ও মিলাদ মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আরো পড়ুন: “আওয়ামী লীগ নেতারা সব বিকারগ্রস্ত”: রিজভী

রিজভী বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলছেন, জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা দেননি। আর প্রধানমন্ত্রীর স্বামী তার বইয়ে লিখেছেন, ‘যখন জানতে পেলাম একজন মেজর (জিয়াউর রহমান) স্বাধীনতার ঘোষণা দিচ্ছে তখন আমি ও শেখ হাসিনা একসাথে সেই ঘোষণা শুনলাম।’ আমার প্রশ্ন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মিথ্যা বলছেন, না তার স্বামী মিথ্যা বলছেন? এটা আগে ক্লিয়ার করা দরকার। এটা যদি আগে ক্লিয়ার করা হয় তবে আমার মনে হয় অন্য বিষয় পরে কথা বলা যাবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, ওবায়দুল কাদের আপনি আপনার এক বক্তব্যে বলেছেন, ‘বিএনপি আন্দোলন হলে ঘরে বসে থাকে।’ আপনার বক্তব্য সঠিক। কিন্তু আপনার বক্তব্য থেকে একটি শব্দ ছুটে গেছে। সেই শব্দটা হলো ‘লাল ঘরে’ বসে থাকে। ঘরের আগে ‘লাল’ শব্দটা বসবে। কারণ আন্দোলনের কর্মসূচী দেয়ার সাথেসাথে জাতীয় পযায় থেকে তৃণমূল পযন্ত কাউকে আপনারা ঘরে থাকতে দেন না। গ্রেফতার করেন।

তিনি বলেন, ওবায়দুল কাদের এর আগে বলেছেন, বিএনপি শুধু আন্দোলনের বিলাশ করে। ওবায়দুল কাদের সাহেব বিলাশ আমরা করছি? আপনি কি দেখেছেন, ছাত্রদলের এক ছেলের পায়ে গুলি করে কিভাবে পঙ্গু করা হয়েছে। আপনি কি দেখেছেন, গুলি করে একজনের পেটের একাংশ ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। আপনি কি দেখেছেন, গুম ও বিচার বহিঃর্ভূত হত্যার শিকার কত ছেলের মায়ের হাহাকার আর আর্তনাদ। তাদের বিরুদ্ধে আপনারা রাষ্ট্রীয় বাহিনীকে ব্যবহার করে গুম, খুন করিয়েছেন। আর সেখানে আপনি বলছেন আন্দোলনের বিলাশ করছি। আসল কথা হলো এত অত্যাচার, নিযাতন, মামলা, হামলার পরেও সরকার স্বস্তি পাচ্ছে না। সরকার জাতীয়তাবাদী শক্তির অগ্রযাত্রা সহ্য করতে পারছে না।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়াম্যান তারেক রহমানের প্রশাংসা করে বিএনপির এই নেতা বলেন, তারেক রহমান চাইলে লন্ডনে আরাম-আয়েশে বসবাস করতে পারতেন। কিন্তু তিনি দলকে শক্তিশালী করতে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। আসুন আমরা তারেক রহমানের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণআন্দোলনের মধ্য দিয়ে এই ফ্যাসিস্ট সরকারকে পরাজিত করি।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূঁইয়া, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, যুবদলের এসএমএস জাহাঙ্গীর হোসেন, মামুন হাসান প্রমুখ।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

Related Articles

আমাদের সোসাল মিডিয়া

সর্বশেষ সংবাদ

Translate »