রবিবার, জানুয়ারি ২৩, ২০২২

ডাক্তার সমাজের ভাবমুর্তিকে বিতর্কিত করেছে মুরাদ: ডা. রফিক

নিজস্ব প্রতিবেদক

সরকারের মন্ত্রীসভা থেকে পদত্যাগকারী তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান চিকিৎসক সমাজের কাছে ধিৃকত নাম বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. মোঃ রফিকুল ইসলাম।

মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, জিয়া পরিবারকে নিয়ে করা তথ্য-প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ হাসানের বক্তব্য, মন্তব্য পুরোটাই বানোয়াট, মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

তার বক্তব্য বিকারগ্রস্ত মনেরই বহিঃপ্রকাশ। জিয়া পরিবার বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ ও গণতান্ত্রিক সংগ্রামের অবিচ্ছেদ্য অংশ। তাঁদেরকে হেয় করার অর্থ দেশের মর্যাদাকে অসম্মান করার শামিল।

আরো পড়ুন: স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অবস্থা আগের মতোই, কোনো উন্নতি হয়নি

তিনি বলেন, ডা. মুরাদ হাসান আজ সমগ্র বাংলাদেশের চিকিৎসক সমাজের নিকট ধিকৃত একটি নাম।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ, বিভিন্ন অডিও ক্লিপ এ প্রচারিত তার কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য ডাক্তার সমাজের ভাবমূর্তিকে বিতর্কিত করেছে।

ডা. রফিক বলেন, ব্যক্তি ও শিক্ষাজীবনেও মুরাদের বেপরোয়া জীবনযাপনের ঘটনা প্রমাণ করে যে, অসদাচরণ, উচ্ছৃঙ্খলতা ও মিথ্যাচার তার জীবনের অনুষঙ্গ।

দলমত নির্বিশেষে সমগ্র চিকিৎসক সমাজ মনে করে-তার নামের আগে ডাঃ (ডাক্তার) যোগ করলে সম্মানজনক এই মহান পেশাকে অসম্মানিত করা হবে।

তাই বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিল (বিএমডিসি)-কে তার রেজিষ্ট্রেশন বাতিল করার জোর দাবি জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, পাশাপাশি ডাক্তারদের সকল সংগঠন থেকেও তার অব্যাহতি চিকিৎসক সমাজ প্রত্যাশা করে।

জিয়া পরিবারকে নিয়ে করা তার কাল্পনিক, মনগড়া, অশ্রাব্য ও অরুচিকর বক্তব্যের আমি তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও ধিক্কার জানান ডা. রফিক।

ফেসবুক পেজ লাইক করুন: https://www.facebook.com/Polnewsbd/

আমাদের টুইটার প্রোফাইল ফলো করুন: https://twitter.com/BdPolitical

Related Articles

আমাদের সোসাল মিডিয়া

সর্বশেষ সংবাদ

Translate »